দেশের প্রথম সৃজনশীল বিশ^বিদ্যালয় শান্ত-মারিয়াম ইউনিভার্সিটি অব ক্রিয়েটিভ টেকনোলজির ‘ইন্সটিটিউশনাল কোয়ালিটি অ্যাশুরেন্স সেল’র (আইকিউএসি) উদ্যোগে গতকাল ১০ টায় দিনব্যাপী কর্মশালার উদ্বোধন করা হয় উত্তরার ১৩ নং সেক্টরের ‘ক্রিয়েটিভ হাব’-এ। বিষয় : ওয়ার্কশপ অন আউটকামবেজড কারিকুলাম। শান্ত-মারিয়াম ইউনিভার্সিটি অব ক্রিয়েটিভ টেকনোলজি উপাচার্য প্রফেসর ড. কাজী মো. মফিজুর রহমান অনুষ্ঠানের শুভসূচনা করেন। অংশগ্রহণকারীদের রেজিস্ট্রেশনের মাধ্যমে কর্মশালা শুরু হয়। স্বাগত বক্তব্য রাখেন আইকিউএসি’র পরিচালক প্রফেসর ড. ইয়াসমিন আহমেদ এবং কর্মশালার টেকনিক্যাল সেশন পরিচালনা করেন অনুষ্ঠানের কি-স্পিকার প্রফেসর ড. সরোয়ার জাহান। উপস্থিত ছিলেন বিশ^বিদ্যালয় রেজিস্ট্রার স্থপতি হোসনে আরা রহমানসহ বিশ^বিদ্যালয়ের শিক্ষক ও উর্ধতন কর্মকর্তাবৃন্দ।
বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. কাজী মো. মফিজুর রহমান বলেন, ‘শিক্ষা উন্নয়নে কারিকুলাম উন্নয়ন সংশ্লিষ্ট যেকোন কর্মশালাই অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এসব কর্মশালা যত বেশি হবে, ততই মান নিশ্চিত হবে। বিশেষ করে ‘আউটকামবেজড কারিকুলাম কর্মশালা’ প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষাসহ শিক্ষক এবং শিক্ষার্থীদের কার্যক্রমে গতিসঞ্চার করবে। তারা বুঝতে পারবে কিভাবে চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করে এগিয়ে যেতে হবে।’ প্রফেসর ড. ইয়াসমিন আহমেদ বলেন, ‘এ জাতীয় কর্মশালা প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষার উন্নয়নকে ত্বরান্বিত করে।’ তিনি আরো বেশি কর্মশালা আয়োজনের উপর গুরুত্বারোপ করেন। বিশেষ করে আউটকামবেজড্ কারিকুলামকে একটি চলমান প্রক্রিয়া ও ‘আটর্’ হিসেবে উল্লেখ করে আয়োজক এবং উপস্থিত সুধীবৃন্দকে ধন্যবাদ জানান। এরপর ওয়ার্কশপ স্পিকার প্রফেসর ড. সরোয়ার জাহানের সংক্ষিপ্ত বায়োগ্রাফি তুলেন তাজিয়া সুলতানা। ওয়ার্কশপ স্পিকার আউটকামবেজড কারিকুলাম কনসেপ্টকে শিক্ষার প্রাণশক্তি ও এ জাতীয় কার্যক্রমের মাধ্যমে শিক্ষার গুণগত মান নিশ্চিত করা সম্ভব।’ বলে উল্লেখ করেন। শিক্ষকদেরকে এসব কার্যক্রমে গ্রুপ ডিসকাশনের মাধ্যমে এগিয়ে আসার জন্য তিনি আহবান জানান।
এরপর শুরু হয় টেকনিক্যাল সেশন। এপর্বে আউটকামবেজড কারিকুলাম কনসেপ্টের উপর কর্মশালা পরিচালনা ও এর তদারক করেন প্রফেসর ড. সরোয়ার জাহান। এপর্ব শেষে উপস্থিতিদের মুক্তালোচনা, সুপারিশ পেশ ও ওয়ার্কিং সেশন পরিচালিত হয়। ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন আইকিউএসির অতিরিক্ত পরিচালক মো. আনোয়ারুল হক এবং অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষণা করেন ইন্টেরিয়র ও আর্কিটেকচার বিভাগের প্রধান সহযোগী অধ্যাপক এটিএম মহিউদ্দিন আকন্দ।

One Thought to “শান্ত-মারিয়াম ইউনিভার্সিটি আইকিউএসির কর্মশালা সম্পন্ন”

  1. Architect A.F.M.Mohiuddin Akhand

    We are truly delighted to be a part of this workshops…..It was inspiring ……Hope there will be more on the way for the betterment of the University.

Leave a Comment